করোনা পরীক্ষা হবে ৩৮ ক্রিকেটারের

শ্রীলঙ্কা সফরকে সামনে রেখে ৩৮ ক্রিকেটারের করোনাভাইরাস পরীক্ষা করাবে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড (বিসিবি)। প্রধান নির্বাচক মিনহাজুল আবেদীন আজ বিসিবি কার্যালয়ে সাংবাদিকদের এ তথ্য জানিয়েছেন। ১৮ সেপ্টেম্বর ক্রিকেটারদের বাড়ি বাড়ি গিয়ে সংগ্রহ করা হবে নমুনা। ৩৮ ক্রিকেটারের করোনা পরীক্ষা হলেও শ্রীলঙ্কা সফরকে সামনে রেখে অনুষ্ঠেয় আবাসিক ক্যাম্পে ডাকা হবে ২০ থেকে ২২ জন ক্রিকেটার। জাতীয় দলের সঙ্গে হাইপারফরম্যান্স (এইচপি) দলকেও শ্রীলঙ্কা পাঠাচ্ছে বিসিবি। দল গঠনের আগে নির্বাচকেরা আলোচনা সেরে নিচ্ছেন ক্রিকেট পরিচালনা বিভাগ এবং হাইপারফরম্যান্স (এইচপি) বিভাগের সঙ্গে। সেটির অংশ হিসেবে আজ দুই নির্বাচক মিনহাজুল আবেদীন ও হাবিবুল বাশার বসেন এইচপি বিভাগের প্রধান নাঈমুর রহমানের সঙ্গে। আলোচনা শেষে মিনহাজুল সাংবাদিকদের বললেন, ‘(জাাতীয় দলের জন্য) আমাদের ৩৮ জনের পুল আছে। এই পুলে থাকা সবাইকে কোভিড পরীক্ষা করানো হবে। এ ছাড়া ২৪ জনের একটা এইচপি স্কোয়াডও সেখানে যাচ্ছে। সেভাবেই আমরা ভারসাম্য রাখছি, যাকে যখন দরকার হবে ব্যবহার করা হবে।’ মিনহাজুল যোগ করেন, ‘দেশে তিন বার করোনা পরীক্ষা করে সেখানে গিয়ে আরেকটি পরীক্ষা হবে। অন্তত দুবার পরীক্ষা না করলে বোঝা যাবে না কে নেগেটিভ আছে, কে নেই।’ নাঈমুর জানিয়েছেন, যেহেতু বাংলাদেশ দল ও এইচপির একই সময়ে শ্রীলঙ্কা সফর, টেস্ট সিরিজের আগ পর্যন্ত দুটি দলের সব কিছুই চলবে এক সঙ্গে। এইচপি প্রধান বলেছেন, ‘এখনো হোটেল ও ভেন্যু চূড়ান্ত হয়নি। প্রাথমিক যে আলাপ আলোচনা হচ্ছে তাতে জাতীয় দল ও এইচপি একই ব্যবস্থার মধ্যে থাকবে। এটা শুধু আমাদের ইচ্ছের ব্যাপার নয়, শ্রীলঙ্কার প্রটোকলের ব্যাপারও আছে। টেস্ট সিরিজ শুরুর আগে বাংলাদেশ দল যখন শ্রীলঙ্কান বোর্ডের তত্ত্বাবধানে চলে যাবে তখন আমাদের কর্মসূচি অনুযায়ী এইচপি আলাদা হয়ে যাবে। এইচপির স্কোয়াড পুরোটাই যাবে। সিরিজ যখন শুরু হবে তখন যারা দলে থাকবে না তারা চলে আসবে।’ শ্রীলঙ্কা সফরের দল ঘোষণা হতে পারে সেপ্টেম্বরের দ্বিতীয় সপ্তাহে।