এবার সত্যিই করোনা-আক্রান্তদের পাশে দাঁড়ালেন রোনালদো

করোনা-আক্রান্তদের সাহায্যার্থে এগিয়ে এসেছেন ক্রিস্টিয়ানো রোনালদো ও তাঁর এজেন্ট হোর্হে মেন্দেজ কিছুদিন আগের কথা। শোনা গেল, করোনাভাইরাস আক্রান্ত রোগীদের সাহায্য করার জন্য পর্তুগালের নিজের দুটি বিলাসবহুল হোটেলকে হাসপাতালে রূপান্তরিত করেছেন পর্তুগিজ তারকা ক্রিস্টিয়ানো রোনালদো। যদিও এমন দাবির সপক্ষে কোনো প্রমাণ করা যায়নি। স্বাভাবিকভাবেই, রোনালদোর ভাবমূর্তি নিয়ে টানাটানি পড়ে গেল। কিন্তু এবার রোনালদো দেখালেন, তিনি ফুটবলার হিসেবে যতটা ভালো মানুষ হিসেবেও তার থেকে কম কিছু নন। পর্তুগালের দুইটি হাসপাতালে মোট তিনটি নিবিড় পর্যবেক্ষণ কেন্দ্র বা ইন্টেনসিভ কেয়ার ইউনিট প্রতিষ্ঠা করতে অর্থের জোগান দিচ্ছেন ক্রিস্টিয়ানো রোনালদো। এই কাজে তাঁকে সাহায্য করছেন এজেন্ট হোর্হে মেন্দেজ। টাকার জোগান দিচ্ছেন তিনিও। পর্তুগালে করোনাভাইরাসের প্রকোপ যেন লাগাম ছাড়া না হয়, সে কারণে এগিয়ে এসেছেন দেশটির দুই সন্তান। দুজন মিলে এক মিলিয়ন ইউরো দান করেছেন, বাংলাদেশের হিসেবে যা ৯ কোটি ২২ লাখ টাকার সমান। পর্তুগালের লিসবনের সান্তামারিয়া হাসপাতালে দুটি ও পোর্তোর সান আন্তোনিও হসপিটালে একটি নতুন করে আইসিইউ যোগ করা হচ্ছে। ইএসপিএনের মাধ্যমে জানা গেছে, এই আইসিইউ ইউনিটগুলোর নামকরণ হবে ফুটবল সংশ্লিষ্ট দুজনের নামে। সে দুজন আর কেউ নন, রোনালদো আর মেন্দেজ। ইএসপিএন খবরটা নিশ্চিত হয়েছে ওই দুই হাসপাতালের নিয়ন্ত্রক কর্তৃপক্ষ সিএইচএলইউএন এর মাধ্যমে। তিনটি আইসিইউ তে প্রয়োজনীয় সকল যন্ত্রাংশ থাকার পাশাপাশি দশটি করে শয্যা রাখা হচ্ছে। মার্চের ২৪ তারিখ পর্যন্ত ২০৬০ জন করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন পর্তুগালে। এর মধ্যে প্রাণ হারিয়েছেন ২৩ জন। গত বৃহস্পতিবার দেশটিতে করোনাভাইরাসের সংক্রমণ ঠেকাতে জরুরি অবস্থা জারি করেছে পর্তুগাল সরকার। রোনালদোর জুভেন্টাসের তিন সতীর্থ এখন পর্যন্ত করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন। দানিয়েলে রুগানি, ব্লেইস মাতুইদি ও পাওলো দিবালারা এখন সেরে ওঠার প্রক্রিয়ায় আছেন। রোনালদোর আপাতত সে শঙ্কা নেই, কারণ বহু আগে থেকেই গোটা পরিবার নিয়ে তিনি নিজের শহর পর্তুগালের মাদেইরাতে নিজের বাড়িতে কোয়ারেন্টিনে দিন কাটাচ্ছেন। সান্তামারিয়া হাসপাতালের সভাপতি দানিয়েলে ফেরো জানিয়েছেন, ‘হোর্হে মেন্দেজ আমাদের সঙ্গে যোগাযোগ করে তাঁর ও ক্রিস্টিয়ানোর ইচ্ছার ব্যাপারে আমাদের জানান। তাঁরা আমাদের হাসপাতালে দুটি নতুন আইসিইউ নির্মাণের জন্য অর্থের জোগান দিচ্ছেন, যাতে করোনাভাইরাস মোকাবিলা করা যায়।’ ওদিকে পোর্তোর সান আন্তোনিও হাসপাতালের প্রধান পাওলো বারবোসা ধন্যবাদ জানিয়েছেন রোনালদোকে, ‘ধন্যবাদ জানাই রোনালদো ও মেন্দেজকে এই অসাধারণ সাহায্য করার জন্য। এমন একটা সময়ে তাঁরা আমাদের সাহায্য করলেন যখন দেশ তাঁদের কাছ থেকে আসলেই সাহায্য চাইছে।’ এদিকে হোর্হে মেন্দেজ পোর্তোর সান জোয়াও হাসপাতালে এর মধ্যে এক হাজার মাস্ক ও দুই লাখ পিপিই কিট সরবরাহ করেছেন।