অকারণে পণ্যের দাম বাড়ছে: জি এম কাদের

নিত্যপ্রয়োজনীয় পণ্যের দাম অকারণেই বেড়ে যাচ্ছে বলে মন্তব্য করেছেন জাতীয় পার্টির (জাপা) চেয়ারম্যান জি এম কাদের। তিনি বলেছেন, করোনা মহামারির সময় যৌক্তিক কারণে নিত্যপ্রয়োজনীয় দ্রব্যের দাম বেড়েছে। কিন্তু এখন কোনো কারণ ছাড়াই প্রতিটি পণ্যের দাম বেড়ে যাচ্ছে।

মঙ্গলবার জাপার চেয়ারম্যানের বনানী কার্যালয়ে দলের নবনিযুক্ত মহাসচিব মুজিবুল হকের শুভেচ্ছা অনুষ্ঠানে জি এম কাদের এসব কথা বলেন। জাপার চেয়ারম্যান ও বিরোধীদলীয় উপনেতা জি এম কাদের বলেন, ‘বৈষম্যের বিরুদ্ধে আন্দোলন–সংগ্রামের মাধ্যমেই মহান স্বাধীনতা অর্জিত হয়েছে। তখন বৈষম্য করেছে পশ্চিম পাকিস্তান, এখন আমরা বৈষম্যের শিকার হচ্ছি দেশের ভেতর থেকেই। দেশে সুশাসন নেই; তাই ন্যায়ভিত্তিক সমাজব্যবস্থা তৈরি হচ্ছে না। কিছু মানুষ কোটি কোটি টাকা খরচ করতে বিদেশে যাচ্ছে, টাকা পাচার করে বিদেশে অট্টালিকা তৈরি করছে। অন্যদিকে দেশের বিশাল জনগোষ্ঠী সংসার চালাতে হিমশিম খাচ্ছে।’

জাপার চেয়ারম্যান বলেন, নির্বাচন আর আন্দোলনের সময় সবাই গণতন্ত্রের কথা বলেন। কিন্তু নির্বাচন শেষ হলে গণতন্ত্রের কথা ভুলে যান। রাজনৈতিক অপসংস্কৃতি ও রাজনৈতিক বিকৃতির কারণে দেশপ্রেমিক মানুষ রাজনীতির মাঠে টিকতে পারছেন না।

যাঁরা রাজনীতিতে এগিয়ে যাচ্ছেন, তাঁরা গণমানুষের কথা ভাবেন না। কারণ, বর্তমান সংবিধান অনুযায়ী গণতন্ত্র চর্চা করা সম্ভব নয়। বর্তমান সংবিধান অনুযায়ী দেশে একদলীয় শাসনব্যবস্থা চালু হচ্ছে।

জি এম কাদের বলেন, পল্লিবন্ধু হুসেইন মুহম্মদ এরশাদের রাষ্ট্র পরিচালনায় দেশের মানুষ সবচেয়ে বেশি সুশাসন ভোগ করেছে। তাই দেশের মানুষ আবার জাতীয় পার্টিকে রাষ্ট্রক্ষমতায় দেখতে চায়।

এ সময় জাপার মহাসচিব মুজিবুল হক বলেন, স্থানীয় সরকার নির্বাচনে জাতীয় পার্টির প্রার্থীদের শেষ মুহূর্ত পর্যন্ত মাঠে থাকতে হবে। নির্বাচনের মাধ্যমে দলকে আরও সুসংহত করতে হবে। আগামী জাতীয় নির্বাচনে শক্তিশালী জাতীয় পার্টি লড়াই করে জনগণের প্রত্যাশা পূরণ করবে।

এর আগে জাপার নবনিযুক্ত মহাসচিব মুজিবুল হককে তাঁর নিজের জেলা কিশোরগঞ্জসহ বিভিন্ন এলাকার নেতা-কর্মীরা শুভেচ্ছা জানান। এ সময় জাপার চেয়ারম্যান জি এম কাদের, কো–চেয়ারম্যান এ বি এম রুহুল আমিন হাওলাদার ও সালমা ইসলাম, সাংগঠনিক সম্পাদক সাইফুল ইসলাম, কিশোরগঞ্জের তাড়াইল উপজেলার সভাপতি জহিরুল ইসলাম, করিমগঞ্জ উপজেলার ভাইস চেয়ারম্যান আসমা বেগমসহ বিভিন্ন পর্যায়ের নেতারা মুজিবুল হককে ফুলেল শুভেচ্ছা জানান। এ সময় দলের প্রেসিডিয়াম সদস্য সাহিদুর রহমান, মীর আবদুস সবুর, রেজাউল ইসলাম ভূঁইয়া, আলমগীর সিকদারসহ বিভিন্ন পর্যায়ের নেতারা উপস্থিত ছিলেন।