ইসরায়েল, রাশিয়ার অভিনেত্রীদের সঙ্গে সেরার দৌড়ে বাঁধন

অস্ট্রেলিয়ার এশিয়া-প্যাসিফিক স্ক্রিন অ্যাওয়ার্ডে (অ্যাপসা) সেরা অভিনেত্রীর মনোনয়ন পেলেন আজমেরী হক বাঁধন। ‘রেহানা মরিয়ম নূর’ চলচ্চিত্রে অভিনয়ের জন্য এই মনোনয়ন পেয়েছেন তিনি।

তাঁর সঙ্গে মনোনয়ন পেয়েছেন ইসরায়েলের আলেনা ইভ, রাশিয়ার ভ্যালেন্টিনা রোমানোভা-চেস্কিরে, অস্ট্রেলিয়ার লি পার্সেল ও নিউজিল্যান্ডের অ্যাসি ডেভিস।

অ্যাপসার ১৪তম আসরে এশিয়া–প্রশান্ত মহাসাগরীয় অঞ্চলের ২৫ দেশের ৩৮টি চলচ্চিত্র বিভিন্ন বিভাগে পুরস্কারের জন্য লড়ছে। অ্যাপসাতে সেরা অভিনয়শিল্পীর মনোনয়ন পাওয়ার ব্যাপারটি কয়েক দিন আগেই জানতে পেরেছিলেন বাঁধন।

অফিশিয়াল ঘোষণা না আসায় বিষয়টি নিয়ে এত দিন মুখ খোলেননি তিনি। আজ বুধবার অ্যাপসা কর্তৃপক্ষ খবরটি প্রকাশ করার পর বাঁধনও বাংলাদেশের সংবাদমাধ্যমের সঙ্গে এ নিয়ে কথা বলেন।

বাঁধন বলেন, ‘যেকোনো অভিনেত্রীর জীবনে এটা অনেক বড় সম্মান। বাংলাদেশ থেকে এই উৎসবে এর আগে কোনো অভিনয়শিল্পী মনোনয়ন পায়নি। এই প্রতিযোগিতায় যাঁদের সঙ্গে মনোনয়ন পেয়েছি, যেসব দেশের অভিনেত্রীর সঙ্গে আমার নামটা এসেছে, এটা আমি কল্পনাও করতে পারি না। নিঃসন্দেহে মন ভালো, অনেক বেশি আনন্দ লাগছে। গর্ববোধও করছি। তবে আমি মনে করি, এই মনোনয়ন ছবির পরিচালক (আবদুল্লাহ মোহাম্মদ) সাদই পেয়েছে।’

বাঁধন জানান, এ বছরের নভেম্বরে অ্যাপসা বিজয়ীদের নাম ঘোষণা ও পুরস্কার প্রদান করা হবে। কিন্তু সে সময় বাংলাদেশের প্রেক্ষাগৃহে ‘রেহানা মরিয়ম নূর’ চলচ্চিত্রটি মুক্তি পাবে বলে যাওয়া সম্ভব হবে না।
২০১৩ সালে অ্যাপসার ফার্স্ট জুরি গ্র্যান্ড পুরস্কার অর্জন করে মোস্তফা সরয়ার ফারুকীর ‘টেলিভিশন’। অস্ট্রেলিয়ার ব্রিসবেনে গিয়ে পুরস্কারটি গ্রহণ করেন ‘টেলিভিশন’ ছবির প্রধান অভিনয়শিল্পী তিশা। তাঁর সঙ্গে ছিলেন ছবির চিত্রনাট্যকার আনিসুল হক।